News

ই-জিপিতে আহ্বানকৃত দরপত্রের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে

10/09/2018

ই-জিপি সিস্টেমে আহ্বানকৃত দরপত্রের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০০৯৪০ এ। আহ্বানকৃত এসব দরপত্রের মোট প্রাক্কলিত মূল্য ১ লক্ষ ৭৮ হাজার কোটি টাকারও বেশি।

২০১১ সালে চালু হওয়ার পর থেকে ই-জিপি সিস্টেমের দ্রুত প্রসার ঘটেছে। ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত মোট ১৩২৪টি ক্রয়কারী সংস্থার মধ্যে ১২৫৩টি ই-জিপিতে যুক্ত হয়েছে। ই-জিপি সিস্টেমে একই তারিখ পর্যন্ত নিবন্ধিত দরপত্রদাতার সংখ্যা ৪৭৯৯৬।

মোট ৪৫টি ব্যাংকের প্রায় চার হাজার শাখা সারা দেশে অনলাইন/অফ-লাইনে ই-জিপি সিস্টেমে প্রয়োজনীয় পেমেন্ট গ্রহণ করছে। সংশ্লিষ্ট সকলের  সার্বক্ষণিক সহযোগিতার জন্য রয়েছে ই-জিপি হেল্পডেস্ক (১৬৫৭৫)।

মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী আইএমই বিভাগে প্রশিক্ষণের সনদ বিতরণ করেছেন

12/08/2018

মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী আহম মুস্তফা কামাল এফসিএ এমপি ০৯ আগস্ট ২০১৮ তারিখে আইএমই বিভাগ কর্তৃক আয়োজিত “প্রকল্প ব্যবস্থাপনা, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন” শীর্ষক তিন দিনব্যাপী এক প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করেছেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ২৩জন কর্মকর্তা ওই প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণ করেন। আইএমই বিভাগ কর্তৃক আয়োজিত প্রশিক্ষণের শেষদিনে সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে মাননীয় মন্ত্রী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। জনাব       মো. মফিজুল ইসলাম, সচিব, আইএমই বিভাগ, অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। বিভাগের বিভিন্ন সেক্টরের মহাপরিচালকবৃন্দ ও অন্যান্য কর্মকর্তাগণ এ উপলক্ষ্যে আইএমই সম্মেলন কক্ষে উপস্থিত ছিলেন।

শেষ দিনে সকালের অধিবেশনে সরকারি ক্রয় বিষয়ক দুটি ক্লাস পরিচালনা করেন সিপিটিইউ মহাপরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব জনাব ফারুক হোসেন এবং সিপিটিইউ’র পরিচালক (উপসচিব) জনাব শীষ হায়দার চৌধুরী।

বিকেল ৩টায় সনদ বিতরণের পূর্বে আইএমই বিভাগের সচিব সমাপনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্যে মন্ত্রী মহোদয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী তাঁর বক্তব্যে বলেন, “আমাদের সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে। সবাইকে একসাথে নিয়ে আমরা আমাদের ২০৪১ এর লক্ষ্যে পৌঁছাতে চাই”।

প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, “এখান থেকে গত তিনদিনের প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান আপনারা আপনাদের কর্মক্ষেত্রে কাজে লাগাবেন”। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রসংগ টেনে মন্ত্রী বলেন বিশ্বের ১৯৮টি দেশের মধ্যে ১০ বছর পূর্বে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৫৮তম। এখন তা হয়েছে ৪২তম।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, “২০৩০ সালের মধ্যে আমরা মালয়েশিয়া ও অস্ট্রেলিয়াকে পেছনে ফেলে হবো ২২তম”। বক্তৃতা শেষে মন্ত্রী প্রশিক্ষণ গ্রহণকারী কর্মকর্তাগণের মাঝে সনদ বিতরণ করেন।

সিপিটিইউ প্রমিত দরপত্র দলিলসমূহ বাংলায় অনুবাদ করছে

07/08/2018

সিপিটিইউ প্রমিত দরপত্র দলিলসমূহ (Standard Tender Documents) পর্যায়ক্রমে বাংলায় অনুবাদ করার উদ্যোগ গ্রহন করেছে। এর অংশ হিসেবে ৩০ জুলাই ২০১৮ MIDAS এর সংগে সিপিটিইউ একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। চুক্তির আওতায় বেশ কয়েকটি STDs বাংলায় অনুবাদ করা হবে। সিপিটিইউ এর মহাপরিচালক মো. ফারুক হোসেন ও MIDAS এর ব্যবস্হাপনা পরিচালক ড. এ এস এম মশি-উর- রহমান নিজ নিজ পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

পাঁচ মাস মেয়াদী এ চুক্তির আওতায় ১০টি STDs ইংরেজী থেকে বাংলায় অনুবাদ করা হঢ্ছে। একই সংগে পিপিএ-২০০৬ ও পিপিআর-২০০৮(সকল সংশোধনীসহ) বাংলা থেকে ইংরেজীতে অনুবাদ করা হচ্ছে।

Special mission on assessment of public procurement system begins

23/07/2018

A special mission of World Bank and CPTU on the assessment of Bangladesh public procurement system started on 22 July 2018 at CPTU.

The mission will conclude on 2 August 2018. The kick-off meeting was presided over by DG, CPTU and Additional Secretary Md Faruque Hossain. Ishtiak Siddique, Senior Procurement Specialist is leading the WB mission. Dr Zafrul Islam, Lead Procurement Specialist and Peter-Armin Trepte, Lead Legal Procurement Consultant of World Bank, representatives of agencies involved in the assessment process and CPTU officials were present in the meeting.